‘আমরা জনগণের টাকা মেরে খেতে আসিনি, দিতে এসেছি’

|

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আমরা জনগণের টাকা মেরে খেতে আসিনি। জনগণকে দিতে এসেছি। আজ বৃহস্পতিবার রাজশাহীতে মাদ্রাসা ময়দানের জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, এতিমের টাকা মেরে খাওয়ার লোভ যে সামলাতে পারে না, সে দেশকে কী দিতে পারে? মানুষকে যারা পুড়িয়ে হত্যা করে, তারা দেশকে কী দিতে পারে?

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, খালেদা জিয়ার দুই ছেলের দুর্নীতি এখন প্রমাণিত। আজ বিএনপি কিসের জন্য আন্দোলন করছে? তারা চোরকে বাঁচাতে আন্দোলন করছে। বিএনপি-জামায়াতের সময় রাজশাহী সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের এলাকায় পরিণত হয়েছিল। তারা বাংলা ভাই সৃষ্টি করেছিল। বিএনপি-জামায়াতের সময় প্রতিনিয়ত হামলার শিকার হয়েছে রাজশাহীর মানুষ।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়ন নিয়ে আসে আর বিএনপি-জামায়াত উপহার দেয় লাশ। আওয়ামী লীগ উন্নয়ন করে আর বিএনপি ধ্বংস করে। আমরা প্রথম মোবাইল ফোন দেশের মানুষের হাতে তুলে দিয়েছিলাম। বিএনপির আমলে মানুষ মোবাইল চোখেই দেখেনি।

তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার পুত্র সবাইকে খাম্বা দিয়েছে, বিদ্যুৎ দেয়নি। আমরা ২০২১ সালের মধ্যে সবাইকে বিদ্যুৎ দিবো প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি। ২০২১ এর মধ্যে প্রতিটি ঘরে আলো জ্বলবে। কোন ঘর অন্ধকার থাকবে না। রাজশাহীতে গ্যাস ছিল না। আমরা এখানে গ্যাস দিয়েছি। যাতে শিল্প-কারখানা গড়ে ওঠতে পারে। কৃষক এখন নিজেই মোবাইলের মাধ্যমে দেখতে পারে, কোন মাটি ভালো আর কোন মাটিতে চাষ হবে না। আসছে নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চাই।









Leave a reply