নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ৮ম শ্রেনির ছাত্রীকে ধর্ষণ

|

স্টাফ রিপোর্টার, মাদারীপুর

মাদারীপুরের রাজৈরে ৮ম শ্রেনির এক ছাত্রীকে নেশা জাতীয় দ্রব্য খাইয়ে ধর্ষণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত রোববার রাতে উপজেলার হোসেনপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বৃহস্পতিবার এ ব্যাপারে থানায় ৪ জনকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে ভিকটিমের বড় বোন। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে রাতেই আউয়াল লস্কর নামের এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে।

ভুক্তভোগীর পারিবার ও মামলার সূত্রে জানা যায়, মাদারীপুর জেলার রাজৈর উপজেলার হোসেনপুর গ্রামে ৮ম শ্রেনির এক ছাত্রী স্কুলে যাওয়া আসার সময় বাড়ীর পাশে ইউসুফ লস্করের ছেলে রোমান লস্কর (২৪) প্রায়ই তাকে উত্যক্ত করতো এবং খারাপ প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। ওই ছাত্রী উক্ত প্রস্তাব প্রত্যাখান করায় রোমান লস্কর ক্ষিপ্ত হয়ে গত রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ওই ছাত্রীর বান্ধবীকে দিয়ে জুসের মধ্যে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে পরিবারের সকলকে খাওয়ায়। এসময় পরিবারের সকলে অচেতন হয়ে পড়লে রোমান লস্কর তার সহযোগিদের সহায়তায় ওই ছাত্রীর ঘরে ঢুকে তাকে ধর্ষণ করে। পরের দিন সোমবার সকালে প্রতিবেশীরা ওই পরিবারের সকলকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে রাজৈর হাসপাতলে ভর্তি করে। ধর্ষণের অভিযোগ থাকায় রাজৈর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ঐ ছাত্রীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এদিকে ধর্ষণের ঘটনা ধামাচাপা দিতে ধর্ষকের পরিবার গ্রাম্য মাতুব্বরদের মাধ্যমে বার বার মিমাংসার চেষ্টা করে। কিন্তু মিমাংসা না হওয়ায় ছাত্রীর বড় বোন বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার রাজৈর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছে ।

রাজৈর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সিরাজুল হক সরদার জানান, বৃহস্পতিবার ভিক্টিমের বোন বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামি করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে মামলার ২নং আসামি আউয়াল লস্করকে গ্রেফতার করেছে। ডাক্তারী পরীক্ষার পর প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে।









Leave a reply