এসএসসি পরীক্ষার্থীর নগ্ন ছবি ধারণ, ভয় দেখিয়ে দেহ ব্যবসা

|

ফরিদপুর প্রতিনিধি

ফরিদপুরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে নারী পাচারের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ৩ নারীসহ মোট ৮ জনকে আটক করেছে র‌্যাব ৮ ফরিদপুরের সদস্যরা। শুক্রবার সকালে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো, সদর উপজেলার বাখুন্ডা এলাকার মো. লিটন শেখ (৩০), নাসিমা বেগম ওরফে কমলা (৫০), নাইমুজ্জামান রাজু (১৯), তানজিলা আক্তার (১৯), ফতেহপুর এলাকার শারমিন বেগম লিপি (৩৩), মো মোস্তাক খান (৪০), কাফুরা এলাকার শেখ আলাউদ্দিন (৬০) ও শেখ আফজাল (৩৫)।

র‌্যাব ৮ ফরিদপুর ক্যাম্পের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন জানান, ৫/৬ মাস পূর্বে আটককৃতরা সদর উপজেলার বাখুন্ডা এলাকার এসএসসি পরীক্ষার্থীকে প্রতারণামূলকভাবে ঘরে বন্দী করে নগ্ন ছবি ধারণ করে। পরে এই ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখিয়ে জোরপূর্বক দেহ ব্যবসা করতে বাধ্য করে।

এক পর্যায়ে ঢাকার রায়ের বাজারের একটি ফ্লাটে নিয়ে যায় ওই কিশোরীকে। সেখানেও আটকে রেখে তাকে দিয়ে দেহ ব্যবসা করায় আটককৃতরা। সেখানে ভুয়া পাসপোর্ট বানিয়ে ওই কিশোরীকে দেশের বাইরে পাঠানোর চেষ্টা চলছিল।

মাস খানেক আগে ওই কিশোরী রায়ের বাজার ওই ফ্লাট থেকে পালিয়ে আসে। ওই কিশোরী ও তার মা ফরিদপুর র‌্যাব ক্যাম্পে এসে ঘটনার বর্ননা দিয়ে সাহায্যের আবেদন করেন। র‌্যাব অনুসন্ধান চালিয়ে ঘটনার প্রাথমিক সত্যতা পেয়ে এদের আটক করতে ফরিদপুর সদর উপজেলার বিভিন্ন জায়গায় অভিযান চালায়। শুক্রবার ভোর ৫ টা থেকে অভিযান চালিয়ে এই ৮ জনকে আটক করে।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরো জানান, এই ৮ জনই এই পাচারের সাথে কোন না কোন ভাবে জড়িত। এই ঘটনায় ভুক্তভোগী ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে বলেও জানান তিনি।









Leave a reply