পড়লেখার ভয়ে বাড়ি থেকে পলায়ন, পাবনা থেকে উদ্ধার

|

পাবনা প্রতিনিধি
ঢাকার ডেমরা থেকে নিখোঁজ হওয়া ওসমান গনি নামের ৯ বছরের শিশু শুক্রবার চাটমোহর থেকে উদ্ধার হয়েছে। চাটমোহর থানা পরিচয় নিশ্চিত হয়ে শিশুটিকে তার বাবার হাতে তুলে দেন। তবে পড়ালেখার ভয়ে বাড়ি থেকে শিশুটি পালিয়েছিলো বলে জানা যায়।

জানা গেছে, ঢাকার ডেমরার নড়াইবাগ গ্রামের মোহাম্মদ আলীর ছেলে ওসমান গনি গত বছরের ৩০ অক্টোবর স্থানীয় একটি মাদ্রাসা থেকে হাফেজী পাশ করে। এর পর তার বাবা-মা তাকে অন্যত্র পড়ালেখার চাপ দেয়। পড়ালেখার ভয়ে শিশুটি ৫ দিন আগে বাড়ি থেকে পালায়। কিন্তু সে কোথায় যাবে কি করবে এসব ভাবতে ভাবতে ঢাকা-ঈশ্বরদী রেলপথের একটি ট্রেনে উঠে পরে। সিরাজগঞ্জ থেকে চাটমোহর উপজেলার কাটাখালী গ্রামে বাড়ি ফিরছিলেন তোরাব আলী নামক এক ব্যবসায়ী। তিনি ট্রেনে শিশুটিকে কাঁদতে দেখে নিজ হেফাজতে নেন এবং বাড়ি নিয়ে আসেন। কিন্তু তিনি অনেক চেষ্টা করেও শিশুটির পিতা মাতার খোঁজ করতে পারছিলেন না।

বিষয়টি স্থানীয় যুবক আলীম আব্দুল্লাহ জাতীয় সেবা সার্ভিস ৯৯৯ (ট্রিপল নাইন) এর সাহায্য নেন। এর পর তিনি ডেমরা থানার ওসি এবং ডেমরার সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সচিবের সাথে কথা বলে শিশুটির পরিচয় নিশ্চিত হন। পরে শিশুটির বাবার সাথে কথা বলেন তিনি। এদিকে বিষয়টি পাবনা জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপে রাত দুইটার দিকে চাটমোহর থানা পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।
শুক্রবার বিকেলে শিশুটির বাবা চাটমোহর থানায় এসে শিশুটিকে নিয়ে যান। এসময় এক হৃদয় বিদারক দৃশ্যের অবতারনা হয়। ছেলেকে ফিরে পেয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন তার বাবা মোহাম্মদ আলী।

শিশুর পিতা মোহাম্মদ আলী জানান, বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনের বাড়ি ও সম্ভাব্য জায়গায় খোঁজ খবর করেও আমরা শিশুটির সন্ধান পাচ্ছিলাম না। সন্তান হারিয়ে ওর পাগল প্রায়। আল্লাহর অশেষ মেহেরবানীতে সন্তানকে ফিরে পেয়েছি। তিনি সকলের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. রমজান আলী জানান, সঠিক তথ্য প্রমাণ পেয়ে শিশুটিকে তার পিতার হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।









Leave a reply