সৌদি আরব থেকে সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত মালয়েশিয়ার

|

সৌদি আরবে অবস্থান করা মালয়েশিয়ান সেনা সদস্যদেরকে দেশে ফেরত নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশটির বর্তমান সরকার। আজ বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী মোহাম্মদ সাবু এ কথা জানিয়েছেন।

মন্ত্রী জানান, গত সপ্তাহে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়। তবে কবে সেনাদের ফেরত আনা হবে তা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এবং সেনাবাহিনী ঠিক করবে।

দুই বছর আগে ইয়েমেনে সৌদি হামলার পর বিভিন্ন মুসলিম দেশ থেকে সেনা সহায়তা চেয়েছিলো সৌদি সরকার। তখন মালয়েশিয়াসহ কিছু দেশ ‘ইসলামি বিভিন্ন স্থাপনার নিরাপত্তার স্বার্থে’ সৌদিতে নিজেদের সেনা মোতায়েন করেছিল।

তবে পাকিস্তানসহ বেশিরভাগ মুসলিম দেশে রিয়াদের আহ্বানে সাড়া দেয়নি। নাজিব রাজাকের আগের সরকারকে হটিয়ে আনোয়ার ইব্রাহিম ও মাহাথির মোহাম্মদের নেতৃত্বে নতুন সরকার গঠনের পর মালয়েশিয়া এই সেনা প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নিল।

এ বিষয়ে মোহাম্মদ সাবু বলেন, ‘মধ্যপ্রাচ্যে চলমান সংঘাতে আমরা কোনো দেশের পক্ষ নিতে চাই না। একমাত্র ইসরায়েল ব্যতিত বিশ্বের সব দেশের সাথে আমরা বন্ধুত্বের সম্পর্ক চাই।’

দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের প্রভাব বিস্তার বিষয়ে মালয়েশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, দক্ষিণ চীন সাগর আমাদের জন্য একটি অর্থনৈতিক অঞ্চল। আমরা ওখানে যুদ্ধজাহাজ পাঠাতে চাই না। তবে নিরাপত্তার স্বার্থে (বিশেষ করে দস্যুদের হাত থেকে) টহল জাহাজ থাকবে। মন্ত্রী আরও জানান, শিগগিরই প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ চীন সফরে যাবেন এবং এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা করবেন।









Leave a reply