আমের লোভ দেখিয়ে শিশুকে ধর্ষণ করলো ৬৫ বছরের বৃদ্ধ

|

নড়াইল প্রতিনিধি
নড়াইলে সাত বছরের এক শিশুসহ গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। শিশু ধর্ষণের মামলায় নড়াইল পৌর এলাকার ধোপাখোলার হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক তুষার বিশ্বাসকে (৬৫) এবং গৃহবধূকে গণধর্ষণের মামলায় লোহাগড়া উপজেলার তেলকাড়ার ঈসা মন্ডলকে (৩২) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসী ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, আম খাওয়ানোর লোভ দেখিয়ে গতকাল সোমবার (২ জুলাই) বিকেলে তুষার বিশ্বাসের ঘরের মধ্যে শিশুটিকে ধর্ষণ করে। শিশুটির চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক তুষারকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন। অসুস্থ শিশুর ডাক্তারি পরীক্ষা শেষ হয়েছে।

নড়াইল সদর থানার ওসি আনোয়ার হোসেন জানান, এ ঘটনায় শিশুর বাবা বাদী হয়ে আজ মঙ্গলবার দুপুরে তুষার বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

এদিকে, গতকাল সোমবার বিকেলে লোহাগড়া উপজেলার মাইগ্রামে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

ভূক্তভোগী গৃহবধূ জানান, বাড়ির পাশে কলাবাগানে এক কাঁধি কলাকাটা দেখে সেখানে এগিয়ে যান তিনি। এ সময় কলাবাগানে লুকিয়ে থাকা মিলন মোল্যাসহ কয়েকজন যুবক বের হয়ে তার মুখ চেপে ধরে গণধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। আত্মচিৎকারে প্রতিবেশিরা এগিয়ে এসে গৃহবধূকে উদ্ধার করে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

লোহাগড়া থানার ওসি প্রবীর কুমার বিশ্বাস জানান, ভূক্তভোগী গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে এ ঘটনার মূল হোতা মিলন মোল্যাসহ (৩৫) অজ্ঞাত ৩-৪ জনের নামে আজ মঙ্গলবার দুপুরে মামলা দায়ের করেন। মিলনের সহযোগী ঈসা মন্ডলকে ইতোমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে।

নড়াইল সদর হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গৃহবধূ ও শিশুটির ডাক্তারি পরীক্ষা শেষ হয়েছে।









Leave a reply