মুহাম্মদ (স.) কে নিয়ে কার্টুন প্রতিযোগিতা কেন বাতিল করলেন ডাচ এমপি?

|

নেদারল্যান্ডের ইসলামবিদ্বেষী এমপি তার ঘোষিত একটি ধর্ম অবমাননাকর কার্টুন প্রতিযোগিতা বাতিল করেছেন। ডাচ আইনপ্রণেতা গির্ট উইল্ডারস বৃহস্পতিবার এক লিখিত বিবৃতিতে প্রতিযোগিতাটি বাতিলের ঘোষণা দেন।

নেদারল্যান্ড সরকারের কোনো বাধা না থাকার পরও কেন প্রতিযোগিতাটি তিনি বাতিল করলেন তাও জানিয়েছেন উইল্ডারস।

মূলত মুসলিমপ্রধান কয়েকটি দেশে ব্যাপক বিক্ষোভের কারণেই তিনি কর্মসূচিটি বাতিল করেছেন। এছাড়া ব্যক্তিগতভাবে হত্যার হুমকি পাওয়াও একটি কারণ হতে পারে।

উইল্ডারস বলেন, ‘ইসলামী সহিংসতার শিকার হওয়া থেকে বাঁচাতে প্রগ্রামটি বাতিল করেছি। এটা আসলে আর শুধু আমার ব্যক্তিগত বিষয় হিসেবে সীমাবদ্ধ থাকেনি। বিরোধীরা পুরো নেদারল্যান্ডকে টার্গেট বানিয়ে ফেলেছে।’

গত সপ্তাহে এই উগ্রপন্থী ইসলামবিদ্বেষী নেতা ঘোষণা দেন, আগামী নভেম্বরে তিনি মুহাম্মদ (স) এর কার্টুন প্রদর্শনীর আয়োজন করবেন। এজন্য যে কেউ নিজের আঁকা কার্টুন জমা দিতে পারেন।

ইসলামে নবী (স.) এর কোনো ধরনের আকৃতি অঙ্কন ও প্রকাশ সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। ফলে এমন ঘোষণা মুসলিমপ্রধান দেশগুলোতে প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়। বিশেষ করে পাকিস্তান ও আফগানিস্তানে লাখো মানুষ রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ করেন। তারা দাবি তুলেন, নেদারল্যান্ডের সাথে কূটনৈতিক সম্পর্ক বিচ্ছিন না করলে রাস্তা ছাড়বেন না।

এর পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তান সরকার ডাচ ওই নেতার আচরণে অসন্তোষ প্রকাশ করে। বৃহস্পতিবার এক ভিডিও বার্তায় প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেন, এই ধর্ম অবমাননাকর কার্টুন প্রতিযোগিতা বন্ধে তিনি মুসলিম দেশগুলোর জোট ওআইসি’র মাধ্যমে ইস্যুটি জাতিসংঘে তুলে ধরবেন।









Leave a reply